হলিউডের THE MATRIX ছবিতে সংস্কৃত

0
105

হলিউডের সাড়া জাগানো ছবি The Matrix এখন আলোচিত একটি নাম। বিশেষতঃ যারা হলিউডের ছবি দেখতে অভ্যস্থ তারা অন্তত এ The Matrix ফিল্মটি একবার হলেও দেখেছে। মূলত অ্যাকশন ধর্মী আর উচ্চতর টেকনোলজী ব্যবহার করায় এ ছবিটি দারুন দর্শক জনপ্রিয়তা পেয়েছে। ভায়োলেন্সধর্মী এ্যাকশনের বৈচিত্র্যতা ও ভিন্নধর্মী গল্পের কারণেই এ জনপ্রিয়তা। কিন্তু এ সাড়া জাগানো ফিল্মটির আকর্ষণ রয়েছে মূলত একটি বিশেষ কারণে। তা হল, এ ফিল্মটির একটি বিশেষ মুহুর্তে সংস্কৃতের ব্যবহার। ছবিটির পরিচালক ল্যারি এবং অ্যান্ডি ম্যাকোস্কি একদম শেষ পর্যায়ের একটি গুরুত্বপূর্ণ দৃশ্যে সংস্কৃতি ভাষা ব্যবহার করেন।
সবচেয়ে অবাকের বিষয় হল, এ সংস্কৃতি শ্লোকসমূহ উপনিষদ থেকে নেয়া হয়েছে। উপনিষদের বৃহদারণ্যক (১.৩.২৮) থেকে সংগৃহীত এ শ্লোকটি মূলত একটি প্রার্থনামূলক “আমাকে অজ্ঞানতা থেকে পরম সত্যের দিকে পরিচালনা করুন, অন্ধকার থেকে আলোর দিকে নিয়ে যান। মৃত্যু থেকে অমর হওয়ার জন্য আমাকে পরিচালিত করুন।” শুধুমাত্র ঐ সংস্কৃত শ্লোকটিই নয়, ঈশোপনিষদ, মুণ্ডক উপনিষদ এবং কঠ উপনিষদ থেকেও সংগৃহিত কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ শ্লোক গাওয়া হয়। আর এ শ্লোকসমূহকে সুর দিয়ে গেয়েছেন ব্রিসপিয়ান মাইলস্। অনেকেই ছবিটির শেষ মুহুর্তের ঐ গানটিকে জার্মান ভাষায় গাওয়া হয়েছে মনে করলে ভুল করবেন। একটু সুক্ষ্মভাবে শুনলে উপনিষদের এ শ্লোকগুলো পরিস্কারভাবে বুঝতে পারবেন। তাছাড়া আরেকটি সুখবর হল উইলিয়াম ব্লেকের একটি কবিতায়ও কোরাল হিসেবে ‘ওম নমো ভাগবতে বাসুদেবায়’ শ্লোকটি অন্তর্ভূক্তি পেয়েছিল। তবে এক্ষেত্রে হলিউডে এসব শ্লোকগুলির অনুবাদ সম্বলিত সুযোগ-সুবিধাসমূহ পেয়েছিল মূলত এ.সি. ভক্তিবেদান্ত স্বামী প্রভুপাদের ইংরেজি সংস্করণ উপনিষদ থেকেই। পাশ্চাত্যবাসীকে এ উপনিষদ পরিচয় করিয়ে দেওয়ার জন্য তিনি ইংরেজিতে তাৎপর্য সম্বলিত উপনিষদসমূহকে প্রকাশ করেন। তারই কল্যাণে, এখন হলিউডে এ পবিত্র শ্লোকসমূহকে বিভিন্ন ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হচ্ছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে The Matrix ছবিতে কোরাল হিসেবে গাওয়া সংস্কৃত শ্লোকসমূহ দর্শকদের কাছে খুবই জনপ্রিয়তা লাভ করেছে। ছবির বিষয়বস্তুর সঙ্গে মিল রেখে এবং Agent Smith এর মধ্যকার শেষ পর্যায়ের সেই যুদ্ধে এ গান গাওয়া হয়। একদিকে যুদ্ধ, অন্যদিকে কোরাল সুরে গাওয়া সেই সংস্কৃত শ্লোক, সব মিলিয়ে এ্যাকশনধর্মী সেই ছবিটিতে এক ভিন্নমাত্রা নিয়ে আসে। তাই সারমর্মস্বরূপ একটি বিষয় আমরা স্বীকার করতেই পারি যে, পৃথিবীর ১ম ভাষা সংস্কৃত আজ শুধু হলিউড কেন বিশ্বের অনেক দেশেই অত্যন্ত শ্রদ্ধাভরে ব্যবহার করা হচ্ছে যা সত্যিই গর্বের দাবিদার বিশেষত সনাতন ধর্মাবলম্বীদের জন্য । হরে কৃষ্ণ ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here