শূন্য

প্রকাশ: ১১ জুন ২০১৮ | ৬:৫৯ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ১১ জুন ২০১৮ | ৭:০৭ পূর্বাহ্ণ

এই পোস্টটি 803 বার দেখা হয়েছে

শূন্য

যে ‘শূন্য’(০) অংকটি আমরা গণিতে ব্যবহার করে থাকি তার উৎপত্তি কোত্থেকে এ সম্পর্কে অনেক লোকেরই অজানা। ‘শূন্য’ সম্পর্কে বৈদিক সংস্কৃত বিভিন্ন গ্রন্থে উল্লেখিত হয়েছিল আজ থেকে বহু বছর পূর্বে। এটি পিনগালাক চন্দ্র সূত্রেও (২০০AD) ব্যাখ্যা করা হয়েছে। ব্রহ্মগুপ্তের (৪০০-৫০০AD) ব্রহ্মপুথ সিদ্ধান্তেও এটি বর্ণিত আছে। অপরদিকে ভাস্করাচার্য x/o = & এবং এ অসীমাকে ভাগ করা হলে তা অসীম থেকে যায় এর তত্ত্ব আবিস্কার করেন। গুজরাটে শূণে সম্পর্কিত প্রাচীন কিছু তথ্যও আবিস্কৃত হয়। পরবর্তীতে শূন্য আরবিক গ্রন্থে প্রকাশিত হয় ৭৭০ AD তে এবং ভারত থেকে ইউরোপে ৮০০ AD তে এই অংকের ধারণাটি নিয়ে যায় এবং সেখানে তার প্রচলন শুরু করে।

সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।