পারমার্থিক রক ব্যান্ড ‘সুপারসোল’

0
56

মাধব স্মুলেন: বর্তমান সমযে রক ব্যান্ড হচ্ছে যুবক-যুবতীদের জন্য অন্যরকম উন্মাদনা। খুবই কম সংখ্যক তরুণ-তরুণী আছেন এই যাদুর ছোঁয়ায় মোহিত হন না। আর অস্ট্রেলিয়ার পারমার্থিক রক ব্যান্ড ‘সুপারসোল’ ঠিক তাই করে থাকে, যাতে করে নতুন প্রজন্ম প্রকৃত আনন্দ লাভ করতে পারে। তারা আধ্যাত্মিক দর্শনকে এমনভাবে পরিবেশন করে, যা গিটার ও হারমোনিয়ামের মাধ্যমে খুবই সুন্দরভাবে ফুঠিয়ে তুলে। ব্যান্ডটি চারজন ভক্তের সমন্বয়ে গঠিত। গায়ক ও গিটারবাদক গৌর হরি দাস, বেইস গিটাররিস্ট লক্ষ্মীভান দাস,, রিদম গিটাররিস্ট শ্বতদ্বীপ দাস ও ড্রামার যদুনন্দন দাস। তারা ২০১৬ সালে ‘ট্রান্সসেন্ড্যাস’ হিসেবে প্রথম আত্মপ্রকাশ করলেও ২০১৭ সালে চারটি পারমার্থিক গানের ইপিসোড প্রকাশের মাধ্যমে ‘সুপারসোল’ হিসেবে নতুন নামকরণ করেন। তাদের প্রথম ইপিসোডটি ছিল ‘সে নাচতে পারে’। সর্বশেষ সম্প্রতি তারা ‘রুহিনী এক্সটাসি’ ইপিসোডটি প্রকাশ করে। ইস্‌কনের শিল্পী পুষ্কর দাস পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের দ্বাপর যুগ লীলায় দ্বারকার ১৬,১০৮ জন মহীয়ষীর মধ্যে শ্রেষ্ঠা রুহিনী দেবীর ছবি অঙ্কন করেন।
শ্রীমদ্ভগবদ্গীতা ও শ্রীমদ্ভাগবত এই রক ব্যান্ডের গানের ইপিসোড তৈরির মূল অনুপ্রেরণা। তাছাড়া শ্রীল লোচন দাস ঠাকুর, শ্রীল ভক্তিবিনোদ ঠাকুরসহ অসংখ্য বৈষ্ণব আচার্যকবৃন্দের রচিত ভজন তাদের ইপিসোডের মূল উপজীব্য বিষয়।
এ ইপিসোডটি শ্রীল লোচন দাস ঠাকুরের ‘শ্রী চৈতন্য মঙ্গল’ হতে সংগৃহীত যেখানে রুহিনী দেবী তাঁর পতি জগৎপতি ভগবান শ্রীকৃষ্ণকে বলছেন যে ভক্তরা যখন তাঁর থেকে বিচ্ছেদ হন, তখন সে বিচ্ছেদ বেদনায় তিনি কতটা বিধ্বস্ত হন তা তিনি (রুহিনী) বুঝতে সক্ষম নন। কিন্তু সে বিচ্ছেদ বিরহ পূর্ণাঙ্গ রূপে বুঝতে পারেন শ্রীমতি রাধারাণী। রুহিনী বলেন, “কেবল রাধারাণীই পরমানন্দ বুঝেন।” অতঃপর ব্যাখ্যা করা হয়-শ্রীকৃষ্ণ, রাধারাণীর ভাবকান্তি অঙ্গীকার করে চৈতন্য মহাপ্রভু রূপে কলিযুগের বদ্ধ জীবদের উদ্ধার করতে কতটা ব্যাকুল। গ্রন্থটিতে ব্যাখ্যা করা হয়-শ্রীকৃষ্ণ চৈতন্য মহাপ্রভুর রূপে আবির্ভূত হন তাঁর ভক্তদের বিশেষত রাধারাণীর প্রেম অনুভব করতে।
দেব গৌর হরি দাস বলেন, “যখনই আমরা একত্রে এই মধুর ও হৃদয়গ্রাহী গানটি গাইতে শুরু করেছিলাম তখনই সুগভীর আর নির্মল আনন্দ অনুভব করি। সত্যিই এটি ছিল খুবই অসাধারণ মুহূর্ত।” গানটির কথা ছিল ঠিক এরকম “সে তাঁর প্রভুকে স্বাগত জানাচ্ছিল, কিন্তু তাঁর গাল বেয়ে অশ্রু প্রবাহিত হচ্ছিল। সেই বলল শুধু রাধাই জানেন তুমি গেলে কিভাবে আমাদের হৃদয় ভেঙ্গে যায় তার অনুভূতি।”
ইপিসোডে অন্যান্য যে সমস্ত গান রয়েছে সেগুলোও গভীর দার্শনিক আধ্যাত্মিক ভাবার্দশে পরিপূর্ণ। যেমন আরেকটি গান রয়েছে যার কথা ঠিক এরকম – “হোলি ইন মাই হার্ট” যেখানে নেশা, অবৈধ যৌনসঙ্গ, দ্যূতক্রীড়া প্রভৃতি বিষয়ে আলোচনা করা হয়েছে। অন্য আরেক গানে ঈর্ষা সম্পর্কে বলা হয়েছে, যা জড় বন্ধনে জীবকে আবদ্ধ করে রাখে। সেখানে লোভ, হিংসা ও ঈর্ষা হতে মুক্তির জন্য প্রার্থনা করা হয়েছে। এইভাবে প্রতিটি গানই অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ। যেমন-শ্রীমৎ দেবামৃত স্বামীর কথা নিয়ে একটি গান, ‘ভক্ত হিসেবে আমাদের এটা ভাবা উচিত নয় যে, আমার ইচ্ছা পূর্ণ হোক বরং এটাই ভাবা উচিত তোমার ইচ্ছাই পূর্ণ হোক প্রভু।’


 

চৈতন্য সন্দেশ নভেম্বর-২০২১ প্রকাশিত

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here