জগন্নাথদেবের চরণ ধুলি

প্রকাশ: ৭ জুলাই ২০১৯ | ৬:৩৭ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ৭ জুলাই ২০১৯ | ৬:৩৮ পূর্বাহ্ণ

এই পোস্টটি 1006 বার দেখা হয়েছে

জগন্নাথদেবের চরণ ধুলি

 

(সত্য ঘটনা অবলম্বনে )

একবার  রাজাপুরে জগন্নাথের স্নানযাত্রা মহোৎসবের দিন ফটিকবাবুর স্ত্রী, নির্মলাদেবী অত্যন্ত অসুস্থ হয়ে পড়লেন।
সেদিন প্রবল বৃষ্টি হচ্ছিল এবং জগন্নাথ মন্দিরে বহু ভক্তসমাগম হয়েছিল। সেদিন নির্মলাদেবী সারাদিন শয্যাশায়ী হয়ে রইলেন মন্দিরে যেতে পারলেন না। স্নানযাত্রা শেষে যখন ফটিকবাবু গৃহে ফিরলেন এবং ঘরে প্রবেশ করেলেন, তিনি মেঝের উপর এক অস্বাভাবিক চরনের ছাপ দেখতে পেলেন। তিনি উপলব্ধি করলেন যে এই চরন চিহ্ন শ্রী জগন্নাথদেবের ছাড়া আর কারো নয়। তিনি তৎক্ষনাৎ সেই পদচিহ্নের কিছুধুলি নিয়ে নির্মলাদেবীর শরীরের উপর ছড়িয়ে দিলেন। এবং কিছুটা নিজের মাথায় দিলেন তৎক্ষনাৎ নির্মলাদেবী রোগ পিড়া হতে মুক্ত হয়ে সুস্থ হয়ে উঠলেন।
জয় জগন্নাথ।
শ্রীধাম মায়াপুরের নিকটতম রাজাপুরে জগন্নাথদেব এতটাই জাগ্রত যে ভক্তদের সাথে এরূপ অনেক লীলা করেছেন
জয় জগন্নাথ।

সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।