শহিদ কাপুরের অজানা তথ্য

প্রকাশ: ১৪ আগস্ট ২০২৩ | ১:০৮ অপরাহ্ণ আপডেট: ১৪ আগস্ট ২০২৩ | ১:০৯ অপরাহ্ণ

এই পোস্টটি 98 বার দেখা হয়েছে

শহিদ কাপুরের অজানা তথ্য

বলিউডের অন্যতম সাড়া জাগানো অভিনেতা হালের সেনশেসান শহিদ কাপুরের জনপ্রিয়তা এখন তুঙ্গে। যারা বলিউডের ফিল্ম দেখতে অভ্যস্থ তাদের জন্য শহিদ কাপুর একজন বড়মানের অভিনেতা। ইতিমধ্যেই তার অভিনয়শৈলী দক্ষতার জন্য অনেক বিখ্যাত বিখ্যাত অ্যাওয়ার্ডও তার ঝুলিতে পড়েছে। বর্তমান বলিউডের নায়কদের র‍্যাংকিংয়েও তার স্থান সুবিধাজনক অবস্থানে রয়েছে। শহিদ কাপুর সম্পর্কে এসব বিশেষণ দেওয়ার অর্থ এই নয় যে, সবাইকে তার ফিল্ম দেখার জন্য আরও বেশি করে আমন্ত্রণ জানানো হচ্ছে। এখানে কাউকে তার ফিলা দেখার জন্য উৎসাহিত করা হচ্ছে না আসল কথা হলো এসব বিশেষণের বাইরেও তার আরেক পরিচয় হলো শহিদ কাপুর একজন পুরোদস্তুর “নিরামিশাষী” । গত জুলাইয়ে PETA এর  ঘোষণা অনুযায়ী তিনি হলেন এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে ফিটনেসধারী নিরামিশাষী। এ প্রদর ঘোষণার ফলে তাকে PETA কর্তৃক সম্মাননাও প্রদান করা হয়। দর্শকদের জরিপে দেবার এ খ্যাতি পাওয়ার পর তিনি বলেন, এটি আসলেই গ্রেট যে, আমি এশিয়ার মধ্যে সবচেয়ে ফিটনেসধারী নিরামিশাষী হতে পেরেছি। আমি সবসময়ই নিরামিশাষী ঘর ও হওয়ার যৌক্তিক কারণকে সমর্থন জানিয়ে এসেছি। এ নিরামিশ তত্ত্ব আমার হৃদয়ের খুব সন্নিকটে পৌঁছেছে। দর্শকদের এই ভোট আমার জন্য গর্বের বিষয়। নিরামিশাষী হওয়া আমার লাইফস্টাইলকেই পরিবর্তন করেছে না এই বিরাট সম্মাননা লাভের মাধ্যমে তথাকথিত প্রবাদ ‘নিরামিশাষী হলে ফিটনেস বা সুন্দর দৈহিক কাঠামো অর্জন করা যায় না সেটি আজ সম্পূর্ণ মিথ্যা প্রমাণিত হল। সুতরাং নিরামিশাষী হলেই ফিটনেসের ঘাটতি হবে, দুর্বল হয় যাবে, দৈহিক কাঠামো সুন্দর হবে না এসব নিম্নমানের হাস্যকর কথা যারা বলে তাদের জন্য শহিদ কাপুর একটি উৎকৃষ্ট উদাহরণ। আশা করি এরপর থেকে। অন্তত শহিদ কাপুরের কথা স্মরণে রেখে ঐসব হাস্যকর কথা বলা থেকে বিরত থাকুন। এই অনুরোধ, যেমনটি শহিদ কাপুরও পরোক্ষভাবে তার সাক্ষাৎকারে বললেন।

হরে কৃষ্ণ।

চৈতন্য সন্দেশ অ্যাপ ডাউনলোড করুন :https://play.google.com/store/apps/details?id=com.differentcoder.csbtg


Hare Krishna Thanks For Reading
সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।