Tense এ নম্বর কত?

0
450

ক্রিয়ার কার্য নিস্পন্ন হওয়ার সময়কে Tense বা কাল বলে । Tense তিন প্রকার । যথা – বর্তমান কাল (Present Tense), অতীতকাল(Past Tense), ভবিষ্যৎ কাল(Future Tense) এই ভিন্ন ভিন্ন Tense এর ভিন্ন ভিন্ন সংজ্ঞা Grammar বইয়ে ব্যাকরণবিদরা লিপিবদ্ধ করেছেন। বর্তমানে  কোন কাজ সংঘটিত হওয়াকে Present Tense বলে। অতীতে কোন কাজ সংঘটিত হয়েছিল বুঝালে সে কালকে অতীতকাল বা Past Tense বলে এবং ভবিষ্যতকালে কোন কার্য সংঘটিত হবে বোঝালে সেই কালকে Future Tense বলে। পাঠকরা বোধহয় একটু অবাক হচ্ছেন এ ভেবে যে, ‘চৈতন্য সন্দেশ’ পত্রিকা কি এখন গ্রামার শিখাচ্ছে ? প্রকৃতপক্ষে উপরে Tense সম্পর্কে যে কিয়দাংশ আপনাদের সামনে তুলে ধরা হর এর পেছনে একটি কঠিন ও চিরশাশ্বত বাস্তবতা লুকিয়ে আছে।

‘Tense’ যাকে বাংলায় ‘কাল’ বলা হয় তা আমাদের জীবনের একটি অপরিহার্য অংশ। প্রতিটি মূহুর্ত ঘড়ির কাটার টিক টিক শব্দের সাথে এগিয়ে যাচ্ছে। সেসাথে আমাদের প্রতিটি মূহুর্ত তিনভাগে বিভক্ত হচ্ছে। গ্রামাটিক্যাল ভাষায় আমরা যে সময়টি পেছনে ফেলে আসছি সেটি অতীত কাল। যে সময়টি অতিবাহিত করছি সেটি হল বর্তমান কাল। আর আমাদের অদূঢ় যে ভবিষ্যৎ অপেক্ষা করছে আরও কিছু মূহুর্ত কাটানোর জন্য তাকে ভবিষ্যৎ কাল বলে অভিহিত করা হয়। আমাদের সমগ্র জীবনকাল এই তিনটি  কালের উপর ভিত্তি করে প্রতিষ্ঠিত। ভেবে দেখুন, আপনার অতীত জীবন আর বর্তমান জীবন। পেছনে ফেলে এসেছেন অনেক কিছুই। বর্তমান এ জীবনটিতে আপনার অনেক পরিবর্তন হয়েছে যা আপনি নিজেই পরিলক্ষিত করছেন। ভবিষ্যতকাল অপেক্ষা করছে আপনার জীবনের সর্বশেষ সময়গুলো কেড়ে নেয়ার জন্য । এভাবে কাল আমাদের জীবনকে ধীরে ধীরে শোষণ করে নিচ্ছে এবং ভবিষ্যত কালের অন্তিম সময় ‘মৃত্যু’ এসে পুরো জীবনটাই শোষণ করে নেয় । আপনার সমগ্র যশ, খ্যাতি, সৌন্দর্য্য , আয়ু, বল, সবকিছু কাল ধীরে ধীরে কেড়ে নেবেই। একসময়কার বিখ্যাত বক্সার মুহাম্মদ আলী সর্বশ্রেষ্ঠ বক্সার হিসেবে পৃথিবীর ইতিহাসে ঠাই পেয়েছিলেন । তার শক্তি সামর্থ্য থাকাবস্থায় তিনি একে একে বিশ্বের বাঘা বাঘা বক্সারকে কুপোকাত করে সমর্থকদের হৃদয়ে জায়গা করে নিয়েছিলেন। তিনি দম্ভোক্তি করে বলেছিলেন- I am the Greatest সেটা ছিল তার Past Tense বা অতীত কালের ইতিহাস। এবার Present Tense বা বর্তমান কালে এসে সেই মুহাম্মদ আলী এখন কেমন আছেন? ইতোমধ্যেই তিনি এক দুরারোগ্য ব্যাধিতে আক্রান্ত হওয়ার দরুন এক কাপ কফিও নিজের হাতে তুলে খাওয়ার মতো শক্তি হারিয়ে ফেলেছে।Present Tense বা বর্তমান কালের করুন ছোবলে পতিত হয়ে এক সময়কার Fame বা খ্যাতিগুলো আজ অতীত স্মৃতি । আর পরবর্তীতে Future Tense বা ভবিষ্যত কালের সবচেয়ে বিপজ্জনক মূহুর্ত ভয়ংকর মৃত্যু তার জন্য অপেক্ষা করছে। এরই সাথে এই ৩টি Tense তার পুরো জীবনটাই নিশ্চিতভাবেই কেড়ে নেবে।
প্রিন্সেস ডায়না, যিনি ছিলেন যুক্তরাজ্যের চার্লস পরিবারের সুন্দরী পত্নীর । তার Present Tense সময়কালীনে পুরো বিশ্ব তার সৌন্দর্য ও ব্যাক্তিত্বে মুগ্ধ হয়েছিল। কিন্তু দুভাগ্যক্রমে Future Tense  বা ভবিষ্যৎ কালের অন্তিম ছোবলে পড়ে এক ভয়াবহ কার দুর্ঘটনায় অকালেই নিহত হয়। তার হয়ত এ ক্ষুদ্র জীবন পরিসরে অনেক পরিকল্পনা ছিল কিন্তু Future Tense  তাকে তার নিয়ম অনুসারে সে সময়টি দেয়নি। তার মৃত্যুতে যুক্তরাজ্যসহ সমগ্র বিশ্ব কান্নায় বুক ভাসিয়েছিল । এমনকি মৃত্যু পরবর্তী ধর্মীয় ক্রিয়াসমূহ পর্যন্ত অনেক দেশের টি.ভি চ্যানেলগুলোতে সরাসরি সম্প্রচারিত হয়েছিল। কোন মৃত মানুষের শেষ ক্রিয়া দেখার জন্য কোটি কোটি চোখ টি,ভি পর্দয় ভিড় করার মত ঘটনা রেকর্ড বুকে স্থান করে নেয়। এ থেকে বোঝা যায় যে , তিনি কি রকম জনপ্রিয় ছিলেন সবার মাঝে। কিন্তু Tense বা কাল সেসব কিছুই বুঝে না। তিনি দরিদ্র বা ধনী কিংবা অত্যন্ত ভাল বা মন্দ হতে পারেন তাতে কিছু যায় আসে না । Tense ঘড়ির কাটার ডান দিকে প্রবাহিত হয়ে ধীরে ধীরে প্রত্যেকের সবকিছুই কেড়ে নেয় । পৃথিবীর ইতিহাসে এরকম আরও বিখ্যাত বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ রয়েছে যারা এ Tense বা কালের গর্ভে হারিয়ে গেছে । বর্তমানে যারা তাদের সাফল্য বা সামর্থ্যরে দ্যুতি ব্যক্তিজীবন তথা সমাজজীবন কিংবা গোটা বিশ্বে ছড়িয়ে দিচ্ছে তারাও ধীরে ধীরে নিঃশেষিত হচ্ছে এবং পুরোপুরি একদিন নিঃশেষিত হবে।
আমাদের জীবনের গাধার মত কঠোর পরিশ্রমের উদ্দেশ্য শুধু ভাল একটি চাকুরী এরপর যথারীতি বিয়ে। বিয়ের পরবর্তী সময়কালটি স্ত্রী-সন্তানদের লালনে পালনে ব্যস্ত থাবতে হয় আরও ২৫টি বছর। এভাবে প্রায় ৫০ বছর অতিবাহিত হয় । বাংলাদেশের গড় আয়ু হিসেবে বাকি ১০-১২ বছর কাটাতে হয় বার্ধক্যের করুণ গ্রাসে। এ ৫০টি বছর আপনি হয়তবা সফল একজন ব্যক্তি হতে পারেন । কিন্তু এ সফলতা পাওয়ার পেছনে আপনাকে দিতে হয়েছে অক্লান্ত শ্রম নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করার কাজে আর প্রতিষ্ঠিত হওয়ার পর কাটাতে হয় ছেলে- মেয়েদের প্রতিষ্ঠিত করার জন্য। এ দু’ক্ষেত্রেই আপনার সফলতার সবকিছুই একসময় মৃত্যু এসে কেড়ে নেয়। এক্ষেত্রে তখন আপনার অতি কষ্টার্জিত সার্টিফিকেট, ধন-সম্পদ, খ্যাতি , সম্মান সবকিছুই হারিয়ে যায়। এর প্রমাণ গত ১২ ফেব্রুয়ারি বান্দরবানে এক নির্মম সড়ক দুর্ঘটনায় চট্টগ্রাম কলেজের অর্থনীতি বিভাগের মেধাবী ছাত্র/ ছাত্রীদের একাংশের মর্মান্তিক মৃত্যুর ঘটনা। এসব ছাত্র-ছাত্রীরা অনেক পরিশ্রম করে সামর্থ্যরে সবটুকু নিংড়ে দিয়ে একটি নির্দিষ্ট লক্ষ্য পুরণার্থে এ স্বনামধন্য কলেজে ভর্তি হয়েছিল । কিন্তু তাদের এতদিনের এই কষ্টার্জিত পরিশ্রম ব্যর্থ করে দিয়েছে Tense বা কাল । আয়ু হরণকারী Tense এসে অকালেই তাদেরকে শোষণ করে নিয়েছে। তাহলে এতদিনের পরিশ্রমের মূল্য কতটুকু? অনেক প্রাচীন দালান-কোটা যেগুলো তখনকার রাজারা তাদের সুখ-সমৃদ্ধির জন্য তৈরি করেছিল সেগুলোর অনেকটাই বিলুপ্ত হয়ে গেছে ।যদিও কিছু স্থাপত্যশৈলী এখনও বিদ্যমান কিন্তু সেগুলোও একদিন না একদিন শোষণ করে নেবেই। সেটা যেকোন উপায়ই হোক না কেন? এই ধরুন না বিশ্বেও দ্বিতীয় সর্ববৃহৎ দালান ‘টুইন টাওয়ারের’ কথা। অনেক অর্থ, শ্রম এবং Tense (সময়) ব্যবহার করে এটি তৈরি করা হয়েছিল। কিছু বছর এ টি সর্ববৃহৎ আকাশচুম্বী দালান হিসেবেই ছিল। কিন্তু পরবর্তীতে অবশেষে তাকে কালের কাছে তার মাথা নিচু করতেইহয় ভয়ংকর এক আত্মঘাতী বিমান হামলায় এটি সম্পুর্ণ বিধ্বস্ত হয়ে যায়। এভাবেই আমাদের গর্বের এবং ঐতিহাসিক সপ্তাচার্যসহ পৃথিবীর ঐতিহাসিক গগনচুম্বী দালানগুেেলাও একদিন না একদিন ধ্বংস হবেই। এটাই প্রকৃতির চিরন্তন নিয়ম। আগেই বলা হয়েছে Tense সেসব কিছুই বুঝে না এবং কোনদিন বুঝবেও না । আপনি আপনার সারা জীবনের শ্রম ব্যবহারকওে যে ঘরটি তৈরি করেছেন সেটি অবশ্যই Tense যে কোন মূহুর্তে কেড়ে নিতে পারে সেটি হয় ভূমিকম্পে অথবা ঘূর্নিঝড়ে অথবা অন্য কোন প্রাকৃতিক দুর্যোগে অথবা ধীরে ধীরে ক্ষয়প্রাপ্ত হয় । এমনকি আপনার অতি প্রিয় স্বজনরাও Tense এর গর্ভে যে কোন মুহুর্তে হারিয়ে যেতে পারে । অনেক উদাহরণ ‘চৈতন্য সন্দেশ’ পত্রিকায় বিভিন্ন সময়ে তুলে ধরা হয়েছিল । অথচ আপনি এসব স্বজনদের লালন-পালনে কত শ্রমই না দিয়েছেন। তাছাড়া আপনার নিজেরই কোনও নিরাপত্তা নেই, Tense আপনাকে যে কোন মূহুর্তে এই জগত থেকে নিয়ে যেতে পারে । এভাবেই Tense প্রকিটি জীবনের শোষণ কারিগর হিসেবে প্রকৃতিতে কাজ করে চলেছে। আর তরি সহরী হচ্ছেন তিনজন সেনাপতি Present Tense, Past tense, Future Tense । ইংরেজী Grammar বা বাংলা ব্যাকরণে এ Tense বা কাল সম্পর্কে আপনি ঠোটস্থ করে পুরোদস্তুর English Sentence বঙ্গানুবাদ করতে পারেন । কিংবা বাংলা ভাষার একজনসুদক্ষ ব্যাকরণবিদ হিসেবে নির্ভুল বাংলা উচ্চারণ করতে পারেন। কিন্তু ব্য জীবনে যেসব Tense এর Practical বা বাস্তবিক পরীক্ষা চলছে সে সম্পর্কে আপনি কতটা অবগত? শিক্ষা বা বাস্তবিক পরীক্ষা চলছে সে সম্পর্কে আপনি কতটা অবগত? শিক্ষা-প্রাতিষ্ঠানিক যে কোন পরীক্ষায় অপনি এ Tense লিখে সর্বোচ্চ নাম্বার পেতে পারেন্ । কিন্তু আপনার জীবনের এ তিনটি Tense এর Practical বা ব্যবহারিক পরীক্ষয় আপনি কত নাম্বার পাচ্ছেন ভেবে দেখেছেন কি? ০ নাকি ১০০? যদি শূন্যই পান তবে ১০০ নাম্বার পাওয়ার জন্য কি করণীয়? ।হরেকৃষ্ণ।

( মাসিক চৈতন্য সন্দেশ মার্চ ২০০৯ সালের প্রকাশিত)

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here