শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে ইস্‌কন ভক্তের প্রার্থনা

প্রকাশ: ২৭ জুন ২০১৯ | ১১:০০ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ২৭ জুন ২০১৯ | ১১:০৭ পূর্বাহ্ণ

এই পোস্টটি 1575 বার দেখা হয়েছে

শ্রীলঙ্কায় সন্ত্রাসী হামলায় নিহতদের স্মরণে ইস্‌কন ভক্তের প্রার্থনা

মাধব স্মুলেন: ইস্‌কন জিবিসি ও যোগাযোগ মন্ত্রী অনুত্তম দাস সম্প্রতি আমেরিকার ওয়াশিংটন ডি.সি’র ওয়াশিংটন ন্যাশনাল ক্যাহোড্রলে শ্রীলঙ্কায় আত্মঘাতী বোমা হামলায় নিহতের জন্য প্রার্থনা নিবেদন করে। গত ২১ এপ্রিল সন্ত্রাসী হামলায় শ্রীলঙ্কায় ২৫০ জনের বেশি লোক নিহত হন। নিহতদের আত্মার শান্তি কামনার উদ্দেশ্যে সেখানে একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বৌদ্ধ, হিন্দু, ইসলাম, ইহুদি ও খ্রিষ্টান ধর্মাবলম্বী, কংগ্রেস সদস্যবৃন্দ, ইউএস গভর্মেন্ট প্রতিনিধিবর্গ, বিভিন্ন রাষ্ট্রদূত, কূটনীতিক ব্যক্তিবর্গ ও শ্রীলঙ্কার কমিউনিটি সদস্যবৃন্দ সহ প্রায় ১ হাজারেরও অধিক গণ্যমান্য ব্যক্তি উক্ত অনুষ্ঠানে সমবেত হয়েছিল। ওয়াশিংটন ন্যাশনাল ক্যাহোড্রলের ডিন র‌্যান্ডলফ মার্শাল হোলেরিথ উক্ত অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন।বিভিন্ন ধর্মীয় নেতা এখানে বক্তৃতা দেন। ইস্‌কনের পক্ষ থেকে অনুত্তম দাস শ্রীমদ্ভাগবতের ৫/১৮/৯ থেকে শ্রীল প্রহ্লাদ মহারাজের একটি প্রার্থনা নিবেদন করেন। ভাগবতের প্রার্থনাটি হল, “সারা জগতের মঙ্গল হোক। খল ব্যক্তিরা অনুকূল হোক। সমস্ত জীবেরা ভক্তিযোগ অনুশীলনের ফলে, পরস্পরের মঙ্গল চিন্তা করে শান্ত হোক। তাই আমরা যেন অধোক্ষজ ভগবান শ্রীকৃষ্ণের চিন্তায় মগ্ন হয়ে সর্বদা তাঁর সেবায় যুক্ত থাকতে পারি।” তিনি এই প্রার্থনাটি একটু অন্য রকমভাবে উপস্থাপন করেন যাতে করে পশ্চিমাদের যেন তা বোধগম্য হয়। তিনি ওম ও ভগবান শ্রীকৃষ্ণের পবিত্র নাম জপের মাধ্যমে শ্রীলঙ্কায় নিহত ব্যক্তিদের উদ্দেশ্যে আশির্বাদ প্রার্থনা করার মাধ্যমে তার বক্তৃতা শেষ করেন। অনুত্তম দাস এরকম একটি অনুষ্ঠানে বৈষ্ণব ঐতিহ্যের প্রতিনিধিত্ব করতে পেরে সম্মানিত অনুভব করেন। তিনি বলেন, “বিশ্বে চলমান সহিংসতার বিরুদ্ধে বিভিন্ন ধর্মের ব্যক্তিদের সম্মিলিত স্বর দর্শন করে আমি বেশ তৃপ্ত”। হরেকৃষ্ণ!

সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।