শ্রীকৃষ্ণই আমাদের প্রকৃত বন্ধু

প্রকাশ: ২২ জুলাই ২০২৩ | ৬:৫২ পূর্বাহ্ণ আপডেট: ২২ জুলাই ২০২৩ | ৬:৫২ পূর্বাহ্ণ

এই পোস্টটি 97 বার দেখা হয়েছে

শ্রীকৃষ্ণই আমাদের প্রকৃত বন্ধু

বন্ধুত্বের আকাঙ্খা বিশ্বজনীন এবং এর ভিত্তি নিহিত রয়েছে আমাদের কাউকে ভালবাসার প্রবণতার মধ্যে। বৈদিক শাস্ত্র থেকে আমরা জানতে পারি যে, পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণই আমাদের প্রকৃত বন্ধু। তাঁর সঙ্গে সেই আদি সম্পর্কটিকেই এই জড় জগতে আমরা বিভিন্ন ক্ষণস্থায়ী সম্পর্কের মাধ্যমে ভুলভাবে পুনঃসৃষ্টির চেষ্টা করছি, যে সম্পর্কগুলো প্রকৃতপক্ষে আমাদের যথার্থ বন্ধুত্বের নিত্য আকাঙ্খাকে তৃপ্ত করতে ব্যর্থ হচ্ছে। পরমেশ্বর ভগবান কৃষ্ণ হচ্ছেন প্রেমময় ভাবের দিব্য উৎস। যে ভাব সকল জীবের মধ্যেই দেখতে পাওয়া যায়। বেদে বলা হয়েছে প্ৰেম বিনিময়ের অক্ষয় আকাঙ্খাবশতঃ ভগবান আমাদের সৃষ্টি করেছেন। তাই তাঁর সঙ্গে বন্ধুত্বের প্রকৃত অবস্থানটিই হল আত্মার প্রকৃত অবস্থান। যেহেতু আমরা নিত্যত কৃষ্ণের অংশ, তাই তাঁর সঙ্গে আমাদের স্বাভাবিক অন্তরঙ্গতা রয়েইছে। আমাদের অন্তরে পরমাত্মারূপে বাস করে জীবনের পর জীবন ধরে সুখের সন্ধানে সমগ্র জাগ্রত পরিভ্রমণরত আমাদের তিনি কৃপা করে | সঙ্গ প্রদান করছেন। আমাদের মত জড়ের সংস্পর্শে থেকেও ভগবান কখনও স্তিমিত হন না, আর তাই তিনি আমাদের মূর্খতা বিষয়ে সম্পূর্ণরূপে সচেতন। আমাদের প্রকৃত বন্ধুরূপে, আমাদের নিজ অভিজ্ঞতা দ্বারা আমাদের প্রচেষ্টার অসারতা হৃদয়ঙ্গম করা তিনি | অনুমোদন করেন এবং অবশেষে স্নেহভরে আমাদের মনযোগকে ভিন্নপথগামী করে সকল আনন্দের ধামস্বরূপ তাঁর দিকে আকৃষ্ট করান। যেহেতু ভগবান শ্রীকৃষ্ণ হচ্ছেন পরম শুদ্ধ, তাই জড় জগতের কলুষিত সম্পর্কগুলির মত তাঁর বন্ধুত্ব কখনও স্বার্থপর মনোভাব দ্বারা কলুষিত হয় না । এই জড় জগতে সকলে। শেষ পর্যন্ত তার আপন স্বার্থ  সচেতন। এমনকি আমাদের বন্ধুত্ব। আমাদের নিজস্ব ভোগবাসনার পরিকল্পনার অন্তর্গত। কিন্তু এই জড় জগতের বন্ধুত্বের ঠিক বিপরীতভাবে, ভগবান কৃষ্ণ সর্বদা এ আমাদের সকলের পরম কল্যাণের জন্য ভাবিত। যদিও আমরা কখনও তাঁর পরম ভোক্তার অবস্থানের প্রতি ঈর্ষাবশতঃ তাঁর এটি কাছ থেকে দূরে চলে যাই বা তাঁর থেকে মুখ ফিরিয়ে নিই, কিন্তু তবুও তিনি সক ক্রমাগত আমাদের প্রয়োজনীয় সমূহ করে সরবরাহ করে চলেন।

শ্রীকৃষ্ণ একজন অত্যন্ত বিশ্বস্ত ও সুবিবেচক বন্ধুও। তিনি কখনই আমাদের ত্যাগ করেন না বা আমরা উপেক্ষিত হচ্ছি এরকম ভাব আমাদের ভিতরে আসতে দেন না। এমন জগতে আমরা হয়ত অনেকের সঙ্গেই বন্ধুত্বের সম্পর্ক গড়ে তুলি, কিন্তু তবুও তা একদিন স্বপ্নের মতোই ফিকে হয়ে আসে । মৃত্যুর সময় উভয় বন্ধুর কর্মফল একে অপরের থেকে বহুদূর নিয়ে যায়। যে সমুদ্রের ঢেউয়ে মুহূর্তের জন্য দুই সমুদ্র শৈবালের দেখা হয়েছিল, সেই ঢেউ সৈকত পরে আছড়ে পড়তেই তা চিরকালের জন্য বিচ্ছিন্ন হয়ে গেল। সুখের কথা, আমরা যদি কৃষ্ণের বন্ধু হই তাহলে এমনটা ঘটার সম্ভাবনা নেই। ভগবান ও জীবের ভাব বিনিময় কখনই বাধাপ্রাপ্ত হয় না। এমনকি এই যে কৃষ্ণকে হৃদয়ঙ্গম করার চেষ্টা করছে, তা এই জন্মে সম্পূর্ণরূপে সফল না হলেও, এই জন্মে যেখানে সে শেষ করেছিল, পরে জন্মে সেখান থেকে সে শুরু করবে। এইভাবে ক্রমান্বয়ে তা চলবেই, যতক্ষণ পর্যন্ত না সে পরিপূর্ণতা লাভ করছে।  তাই পরমেশ্বর ভগবান কৃষ্ণের বন্ধুত্ব অর্জন করা ব্যতীত জীবের আর কোন সর্বোচ্চ আকাঙ্খা থাকতে পারে না। হরেকৃষ্ণ।

মাসিক চৈতন্য সন্দেশ জুলাই ২০১০ হতে প্রকাশিত
সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।