শরীয়তপুরে রথযাত্রা মহোৎসব-২০১৮

0
404

                      

শ্রীশ্রী জগন্নাথ মন্দির (ইসকন) শরীয়তপুর মহা আড়ম্বর পূর্ণভাবে উদ্যাপন করল শ্রীশ্রী জগন্নাথ বলদেব, সুভদ্রা দেবীর রথযাত্রা মহোৎসব। শ্রীশ্রী জগনানাথদেবের অপ্রাকৃত কৃপায় সিক্ত হলো শরীয়তপুরবাসী। শরীয়তপুরের ৭টি থানা সহ দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে আগত অসংখ্যা ভক্তবৃন্দের আগমনে সকাল থেকেই মন্দির অঙ্গণ মুখরিত হয়ে উঠে। মঙ্গল আরতি, দর্শন আরতি, গুরুপূজার পর শুরু হয় জগৎবাসীর কল্যাণের জন্য অগ্নিহোত্র যজ্ঞ। যজ্ঞ শেষে দুপুর ১.৩০ মহা প্রসাদ বিতরণ করা হয়। বিকেলে প্রধান অতিথি জনাব কাজী আবু তাহের, জেলা প্রশাসক, শরীয়তপুরের আগমনে অনুষ্ঠানে এক ভিন্ন মাত্রা যোগ হয়। রথযাত্রা মহোৎসব ২০১৮ স্মরণিকার মোড়ক উন্মোচন করেন। বক্তব্যে তিনি বলেন বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রিতির অনুপম দৃষ্টান্ত। আমি ব্যক্তিগতভাবে সকল ধর্মকে সম্মান প্রদর্শন করি। আন্তর্জাতিক কৃষ্ণ ভাবনামৃত সংঘের সাথে আমার দীর্ঘ দিনের সর্ম্পক। আমি বিভিন্ন জেলায় কর্মরত অবস্থায়ও ইস্কনের সাথে যুক্ত ছিলাম। ইস্কন সারা বিশ্বে ভগবানের অমৃতবাণী প্রচার করে আসছে। এটা আন্তর্জাতিক সংগঠন। শ্রীশ্রী জগন্নাথ মন্দির (ইসকন) এর রথযাত্রা মহোৎসব ও স্মরণিকা প্রকাশনী সহ অন্যান্য সুন্দর ব্যবস্থাপনার এ মহতী উদ্যোগকে আমি স্বাধুবাদ জানাই। আরো বক্তব্য রাখেন শ্রী রিপতী কুমার বিশ্বাস, জেলা যুগ্ম জজ, জজ কোট শরীয়তপুর ও জনাব তানভীর হায়দার শাওন, সিনিয়র এএসপি, শরীয়তপুর সদর (সার্কেল)। অনুষ্ঠানে অতিথিবর্গদের মন্দিরের পক্ষ হতে উপহার স্বরূপ স্মরণীকা, গীতা, গেঞ্জী প্রদান এবং অতিথিদের মাধ্যমে ছাত্রদের মাঝে গীতা বিতরণ করা হয়। ৪.৩০ মিনিটে রথযাত্রার শুভউদ্বোধন করেন জেলা প্রশাসক জনাব কাজী আবু তাহের ও মঙ্গল প্রদীপ প্রজ্জ্বলন করে শ্রী রিপতী কুমার বিশ্বাস, জেলা যুগ্ম জজ, শরীয়তপুর। এরপর সকল ভক্তবৃন্দ শ্রীশ্রী জগন্নাথদেবের রথের রথরজ্জু স্পর্শ পূর্বক আনন্দ ও নৃত্যকীর্ত্তন করতে করতে এগিয়ে চলে। রথযাত্রাটি মনোহর বাজার থেকে আংগারিয়া বাইপাস সড়ক প্রদক্ষিণ করে আংগারিয়া শ্রীশ্রী রাধামাধব মন্দিরে গিয়ে শেষ হয়। আলোচনা সভা ও শোভাযাত্রার নিরাপত্তার দায়িত্বে ছিলেন পালং মডেল থানা, জেলা ডিবি পুলিশ, আংগারিয়া পুলিশ ফারি ও ডিএসবি সাদা পোশাকধারী পুলিশের পিথক টিম। হরে কৃষ্ণ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here