রঙ আপনাকে নিয়ন্ত্রণ করে

0
653
আমাদের প্রাত্যহিক জীবনে রঙের ব্যবহারটা চোখে পড়ার মতো। পোশাক-পরিচ্ছদ থেকে শুরু করে গৃহস্থালীর ঘর গুছানোর কাজটাও হয় পছন্দমত রঙ ব্যবহারের মাধ্যমে। প্রকৃতির কথা বলতে গেলে পুরো পৃথিবীকেই। রঙবেরঙের সাজে সজ্জিত করা হয়েছে স্বয়ং ভগবানের সুদক্ষ অধ্যক্ষতায়। আর মানুষ সে সমস্ত বাহারী রঙের মাধ্যমে পুরো পৃথিবীকেই চোখ ধাধানো পৃথিবী হিসেবে। আরো এক ধাপ এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছে। আজকালকার সভ্যতার জন্য পছন্দসই এবং গুণগত রঙের ব্যবহার কারো উন্নত ব্যক্তিত্বের নিদর্শন হিসেবে সুপরিচিত। কিন্তু আপনি জানেন কি?

যে রঙীন পৃথিবীতে আপনি বসবাস করছেন, যে পৃথিবীর যেকোন রঙ আপনার মন এবং শরীর দুটোর উপরেই প্রভাব বিস্তার করে। শাস্ত্র মতে যে কোন রঙেই সূর্যের শক্তি বিদ্যমান। এই রঙের কথা বলতে গেলে আলোর কথাও চলে আসে। যে কোন ধরনের রঙীন আলোর কথাও চলে আসে। যে কোন ধরনের রঙীন আলো শরীরের উপর তথা মনের উপর বিস্তার করে। বৈদিক শাস্ত্রে বিশেষত আয়ুর্বেদ শাস্ত্রে এ রঙের ব্যবহার সম্বলিত অনেক দিক নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। কোন রঙ আমাদের উপর কিরূপ প্রভাব বিস্তার করতে পারে সে বিষয়েও উল্লেখ রয়েছে। প্রকৃতির সমস্ত জড় উপাদানের মধ্যে তিনটি গুন আচ্ছন্ন হয়ে আছে যেগুলো হল সত্ত্ব, রজঃ ও তম। বৈদিক শাস্ত্র মতে এ তিন গুণের উপর ভিত্তি করে রঙের শ্রেণীবিন্যাসও রয়েছে।যেমনঃ সত্ত্ব গুণ সম্পন্ন রঙ হল সেই রঙ যা আনন্দ, ছন্দ এবং নির্মলতা বা শান্তি নিয়ে আসে সেসমস্ত রঙসমূহ। এসব রঙের মধ্যে সর্বশ্রেষ্ঠ রঙসমূহ হল সাদা, স্বর্ণ রঙ, বেগুনী এবং নীল। পরদিকে রজগুণসম্পূর্ণ রঙসমূহ হল, হলুদ, কমলা, লাল। তমগুণসম্পন্ন রঙসমূহ হল সবচেয়ে নিম্নমানের। এসমস্ত রঙ মন এবং ইন্দ্রিয়গুলোকে ভারী, নিস্ক্রিয় এবং অতিরিক্ত জনসমাকীর্ণ করে তোলে। রঙগুলো হলঃ বাদামী, কালো এবং ধূসর। আয়ুর্বেদ মতে ও বৈদিক জ্যোতিবিদ্যা এবং স্থাপত্য সম্পর্কিত শাস্ত্রে রঙের ব্যবহারকে বিভিন্ন দেবদেবীদের প্রতিনিধি হিসেবে দেখানো হয়েছে। রঙধনুর সাতটি রং বেগুনী, আসমানী, নীল, সবুজ, হলুদ, কমলা ও লালকে সূর্যদেবতার সাতটি রশ্মি হিসেবে বলা হয়ে থাকে। বৈদিক শাস্ত্রে শারীরিক ও মানসিক সুস্বাস্থ্যের জন্য রঙ থেরাপীর কথা বলা হয়েছে। আপনার পছন্দসই রঙের প্রতিফলন হল আপনার ব্যবহার ও ব্যক্তিত্বে। উদাহরণস্বরূপ একজন ব্যক্তি যদি সমস্ত রঙকেই অপছন্দ করে তবে সেও খুব সম্ভবত গান বাজনা, ছোট ছেলেমেয়েদের এবং পুরো জগতটাকেই ঘৃণা করে। এ সমস্ত ব্যক্তিরা তাদের অভ্যন্তরে নেতিবাচক অনুভূতির সৃষ্টি করে যা তাদেরকে নৈরাশ্যগ্রস্থ বা ব্যর্থতা এবং অসহায়ত্বের দিকে পরিচালিত করে। আপনি একটি বিশেষ রঙের প্রতি আকর্ষন নিয়েই জন্ম নিয়েছেন। আপনি কি মনে করেন সেগুলো আপনার সারাজীবনেই থাকবে। আপনার রঙ পছন্দ আপনার জন্মগত বৈশিষ্ট্য। বাল্যকালের স্মৃতি, শিক্ষা, মা-বাবার বিশ্বাস, সাংস্কৃতিক শিক্ষা, রাজনৈতিক শিক্ষাসহ আপনার দৈনন্দিন জীবন-ধারনের সঙ্গে সম্পর্কিত।
আপনার পছন্দসই রঙ দিয়ে আপনি কিরকম ব্যক্তিত্বের অধিকারী তা যাচাই-বাছাই করা যায়। এখানে রঙের এসব বৈশিষ্ট্য তুলে ধরা হল।
লালঃ আপনি পজিটিভ, বলবান বা উৎসাহী এবং আবেগের বশে বিচলিত হওয়ার প্রবণতা বিদ্যমান। আপনার সঙ্গী মানুষদের প্রতি গভীর সহানুভূতিশীল এবং সহজেই প্রভাবিত হয়ে যান। আপনার শক্তিশালী যৌন বাসনা রয়েছে।
কমলাঃ আপনি ভাল স্বভাবের। অন্যদের সাহচর্য উপভোগ করেন এবং বাহ্যিক মতামত দ্বারা প্রভাবিত হয়ে যান। আপনি ভাল কাজ করেন। শক্তিশালী বাধ্যতা রয়েছে ভালো ইচ্ছাশক্তি এবং সহানুভূতিশীল বিদ্যমান।
হলুদঃ আপনার রয়েছে উন্নত কাল্পনিক শক্তি, নার্ভাস শক্তি। আপনি একজন নিরাপদ বন্ধু এবং এরকম অনুগত আত্মবিশ্বাসী। ব্যবহারিক প্রয়োগ ছাড়াই আপনি মহৎ ধারণাসূচক কথা বলতে আগ্রহী। আপনার পৃথক বা আলাদা থাকার প্রবণতা রয়েছে।
সবুজঃ আপনি একজন ভালো নাগরিক এবং সাম্প্রদায়িক ক্ষেত্রে একটি পিলার বা ভিত্তিস্বরূপ এবং সামাজিক প্রথাগুলোর প্রতি আপনি সংবেদনশীল এবং শিষ্টাচারী আপনি অন্তরঙ্গ, নৈতিক বোধ সম্পন্ন এবং খ্যাতিযোগ্য। আপনি নিজেকে সবকিছুতে একজন চমৎকার শিক্ষক হিসেবে গড়ে তোলেন। আপনার রয়েছে সাধারণ যৌন বাসনার কার্যকলাপ এবং আপনার পরিবারে জন্য গভীর স্নেহ অনুভব করেন।
নীলঃ আপনি সুচিন্তিত বা সুপরিকল্পিত (গভীরভাবে কোন কিছু নিয়ে চিন্তা করা) এবং অন্ত দার্শনিক (নিজের চিন্তা ধরা পরীক্ষা করা)। আপনার রয়েছে কোন কিছুর প্রতি সংরক্ষণশীল দৃঢ় বিশ্বাস এবং যদি মানসিক চাপে ভুগেন তখন মাঝে মাঝে পশ্চাৎপদসরণ হয় কিন্তু অনুভূতির প্রতি আপনি সংবেদনশীল। আপনি আপনার ভাবাবেগে এবং গভীর আগ্রহসমূহ নিয়ন্ত্রণের প্রতি কঠোরতা রক্ষা করেন। আপনি এক অনুগত বন্ধু এবং শান্ত বা ধীর জীবন যাপন করেন। আপনি অসম্ভব বা ভ্রান্ত স্বপ্ন পোষন করে থাকেন কিন্তু সেগুলোর হয়ে আচরণ করেন না। অন্যের বোকামী আপনাকে বিরক্ত করে।
বেগুনীঃ আপনার একটি ভাল মন রয়েছে এবং যেটি অন্যর অলক্ষনীয় সেরকম কিছু পর্যবেক্ষন করার ক্ষমতা রয়েছে। আপনি সহজেই রেগে যান এবং বাগবহুল বা বহু শব্দ ব্যবহারকারী যখন কোন কোন দুর্ভাগ্যের সাক্ষী হন। আপনার এক ডিগ্রি অহংকার রয়েছে। চারুকলা সৃষ্টিমূলক ভাবে প্রদর্শন করান এবং চমৎকারকে অন্যদের পরিচিত করান।
বাদামীঃ আপনি আপনি ক্রমাগতভাবেই আপনার কর্তব্যগুলো সম্পাদন করেন। আপনি তী´বুদ্ধিসম্পন্ন ব্যক্তি যেটি অর্থ নিয়ে আসে। আপনার অভ্যাসগুলোর প্রতি আপনি দৃঢ়প্রতিজ্ঞ এবং দৃঢ়বিশ্বাসী। আপনি নির্ভরযোগ্য এবং দৃঢ়। আপনি আবেগের দ্বারা বিচলিত হন।
ধূসরঃ আপনি খুব সতর্ক এবং চেষ্টা করেন অধিকাংশ পরিস্থিতিতে একটি সমঝোতায় পৌছানোর জন্য। আপনি শান্ত বা শান্তির অনুসন্ধান করেন এবং অনেক সময় পান বটে। আপনি নিজেকে আপনার নিজস্ব ডিজাইনে উপযুক্ত হিসেবে গঠন করতে কঠোর কঠোর চেষ্টা করেন।
কালোঃ আপনি মোটের উপরে বৈষয়িক (লাভ করার কৃত সঙ্কল্প) বা সাংসারিক, সামাজিক, সঠিক, ভদ্র এবং রাজকীয়।
এভাবে বৈদিক জ্যেতির্বিদ্যা মতে এসব রঙ প্রিয় ব্যাক্তরা এসব ব্যক্তিত্বের অধিকারী হয়ে থাকে। আগামী সংখ্যায় এসব রঙ শিশুদের প্রতি কিরকম বিস্তার করে এবং মনস্তাত্বিক ও শারীকিভাবে কিরকম প্রভাব বিস্তার করে এসব বিষয়ে তুলে ধরা হবে। (চলবে) হরে কৃষ্ণ।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here