গোবরে কী না হয়…!

প্রকাশ: ২৬ এপ্রিল ২০২৩ | ১:০৯ অপরাহ্ণ আপডেট: ২ মে ২০২৩ | ৭:৩৯ পূর্বাহ্ণ

এই পোস্টটি 88 বার দেখা হয়েছে

গোবরে কী না হয়…!

গোবর ক্যান্সার সাড়াতে সক্ষম, কিংবা গো- মূত্র দিয়ে অনেক গুরুত্বপূর্ণ রোগের উপশম ঘটাতে পারে এ ধরনের তথ্য অনেক আগেই “চৈতন্য সন্দেশ’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছিল। কিন্তু এতেই শেষ নয়। রয়েছে আরো চমক! এবার সকলেই গোবর থেকে তৈরি সার, ঔষধ, তৈল, টুথ পাউডার শ্যাম্পু থেকে শুরু করে পবিত্র ধুপকাঠি পর্যন্ত দৈনন্দিন কাজে ব্যবহার করতে পারেন। এ তথ্য পাঠকদের কাছে খুবই নতুন মনে হলেও অপ্রাকৃত ধাম শ্রী বৃন্দাবন ধামে তা নতুন নয়। গোবর দিয়েও যে এসব তৈরি করা যায় এর আগে বেশিরভাগ লোকই জানত না ৩৭ বছর বয়স্ক নেপালী বংশদ্ভূত যোগাচার্য্য দিল্লিরাজ থিমাইরই প্রথম এটি আবিষ্কার করেন। তিনি মহারাষ্ট্রের নাগপুরে Go Vigyona Research Center থেকে পড়াশোনা শেষ করে নেমে পড়েন গোবর ও গো- মূত্র নিয়ে গবেষনায়। গরুর গোবরে ও গো-মূত্রে যে আশ্চর্য সব গুণাবলী আছে সেটি তিনি আগে থেকেই অবগত ছিলেন। কিন্তু প্রয়োজন পড়েছিল এসব গুণাবলী ব্যবহার করে কি তৈরি করা যায় এবং তা মানুষের জন্য কতটা উপকারী হতে পারে। তার আরেকটি যুগান্তকারী আবিষ্কার হল Garden insect repellent বা বাগানের পোকামাকড় প্রতিরোধকারী ঔষধ। গো-মূত্রকে সিদ্ধ করে তাতে নিম পাতা এবং অল্প শুকনো গোবরের সংমিশ্রণকে একটি পাত্রে রেখে তাতে তাপ দিলে তৈরি হয় এ প্রকার ঔষধ। বিশেষ প্রক্রিয়ায় তৈরি এ প্রকার ঔষধের একটি গুরুত্বপূর্ণ বৈশিষ্ট্য হল কোন পোকামাকড়ই মরবে না পক্ষান্তরে এরা গাছের ক্ষতি করা থেক দূরে থেকে অথবা দূরে সরে যায়। এটি শাকসব্জি সহ তুলসী বৃক্ষেও সফলভাবে ব্যবহারের মাধ্যমে যেকোন বৃক্ষকে পোকামাকড়ের হাত থেকে রক্ষা করতে পারে। মাটির গভীরে গাছের শিকড়কে পোকামাকড়ের হাত থেকে রক্ষা করার জন্যও এটি কুবই কার্যকর। এর ব্যবহারে পোকামাকড়ের মত জীব হত্যার পাপ থেকেও কৃষক রেহাই পেতে পারে।
ধূপকাঠি : এটি তৈরির জন্য যেসব উপাদান প্রয়োজনীয় সেগুলি নিম্নরূপ : ১। মাগরখ (Nagarmutha) ২। রাগ (Ral) ৩। লাল চন্দন ( Lal Chandan ) । জমা (Jatamachi) ৫। কাপুর কচুরি (Japoor Kajuri) খ (Ghee ) প্রথমে ৫টি উপাদান (১ কিলো ওজনে) একত্রে ঘষে চূর্ণ করে পাউডার তৈরি করতে হবে এবং পরে সেই পাউডার ঘির সাথে মিশিয়ে খুব ভালোভাবে নাড়াতে হয়। মিশ্রনটিকে একটি আবদ্ধ পাত্রে রাখা হয় যাতে করে এর ময়েন্ট ঠিক থাকে। | মোটামুটি ভেজাভেজা থাকতে হবে যাতে করে এটি চেপে ধূপকাঠি তৈরি করা যায়। এরপর রোদে শুকাতে হবে। এই প্রক্রিয়ায় বৃন্দাবনে প্রায় দু’ফুট ফ্রেমের কাঠিতে এই ময়েন্ট মিশ্রন লেপন করে প্রায় দু’দিন টাটকা রোদে শুকানো হয়। পরবর্তীতে তৈরি হয়ে যায় ধূপকাটি যা একটি বিশুদ্ধ আবহাওয়া সৃষ্টিতে সহায়তা করে এবং সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার হল এটি যখন জ্বালানো হয় তখন ঐ সমস্ত উপাদানগুলোর মিশ্রন অক্সিজেন উৎপন্ন করতে সহায়তা করে। আপনি চাইলে এই সমস্ত ধুপকাঠি সংগ্রহ করতে পারেন। ১৪ কারি একটি প্যাকেটের মূল্য ৪ ইউ.এস.ডলার। | বৃন্দাবন থেকে আপনি চাইলে অর্ডারও দিয়ে পারেন ।

হরে কৃষ্ণ


চৈতন্য সন্দেশ অ্যাপ ডাউনলোড করুন :https://play.google.com/store/apps/details?id=com.differentcoder.csbtg


 

Hare Krishna Thanks For Reading

সম্পর্কিত পোস্ট

‘ চৈতন্য সন্দেশ’ হল ইস্‌কন বাংলাদেশের প্রথম ও সর্বাধিক পঠিত সংবাদপত্র। csbtg.org ‘ মাসিক চৈতন্য সন্দেশ’ এর ওয়েবসাইট।
আমাদের উদ্দেশ্য
■ সকল মানুষকে মোহ থেকে বাস্তবতা, জড় থেকে চিন্ময়তা, অনিত্য থেকে নিত্যতার পার্থক্য নির্ণয়ে সহায়তা করা।
■ জড়বাদের দোষগুলি উন্মুক্ত করা।
■ বৈদিক পদ্ধতিতে পারমার্থিক পথ নির্দেশ করা
■ বৈদিক সংস্কৃতির সংরক্ষণ ও প্রচার। শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।
■ শ্রীচৈতন্য মহাপ্রভুর নির্দেশ অনুসারে ভগবানের পবিত্র নাম কীর্তন করা ।
■ সকল জীবকে পরমেশ্বর ভগবান শ্রীকৃষ্ণের কথা স্মরণ করানো ও তাঁর সেবা করতে সহায়তা করা।